অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ১৮ মিনিট শরীরে মৌমাছি নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন

গা ভর্তি মৌমাছি। এভাবে নিশ্চুপ দাঁড়িয়ে ছিলেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। সম্প্রতি একটি ফটোশুটের প্রয়োজনে কাজটি করেছেন জনপ্রিয় এই হলিউড অভিনেত্রী।

বিশ্ব মৌমাছি সংরক্ষণ দিবস উপলক্ষে সচেতনতা তৈরির জন্যই এই অভিনব উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। ফটো ও ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইনস্টাগ্রামে জোলির ফটোশুটের একটি ক্লিপ প্রকাশ করেছেন ফটোগ্রাফার ড্যান উইন্টারস। পাশাপাশি ক্যাপশনে এই ফটোশুটের অভিজ্ঞতা জানিয়েছেন।

ড্যান জানান, ২০২৫ সালের মধ্যে ২৫০০ মৌচাক ও ১২৫ মিলিয়ন মৌমাছি সংরক্ষণের উদ্যোগ নিয়ে কাজ করছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। এ জন্য ৫০ জন নারীকে মৌমাছি সংরক্ষণ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এজন্যই ন্যাশনাল জিওগ্রাফির সঙ্গে যৌথভাবে মৌমাছি শরীরে নিয়ে এই ছবি তোলার পরিকল্পনা করেন জোলি।

ফটোগ্রাফার জানান, এই ফটোশুটে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ ছিল জোলির নিরাপত্তা। এজন্য ফটোগ্রাফার রিচার্ড আভেডনের বিখ্যাত ‘বি-কিপার পোট্রেট’-এর পন্থা অবলম্বন করেছেন তিনি। জোলি ছাড়া সেটে সবাই মৌমাছি কামড় থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য বিশেষ পোশাক পরেছিলেন। মৌমাছি যেন অশান্ত না হয়ে সে জন্য ঘর অন্ধকার রাখা হয়। এছাড়া ব্যবহার হয় ইতালিয়ান শান্ত প্রজাতির মৌমাছি। মৌমাছি যেন ঝাঁক বাঁধতে না পারে তার জন্য ব্যবহার হয়েছে ফেরোমন নামে এক ধরনের রাসায়নিক পদার্থ।

ফটোগ্রাফার ড্যান উইন্টারস দেওয়া তথ্যমতে, অ্যাঞ্জেলিনা জোলি ১৮ মিনিট শরীরে মৌমাছি নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এই সময় একটুও নড়াচড়া করেননি। এই অবস্থাতেই তার ছবি তোলা হয়েছে।

–ফটো অনলাইন কালেকশন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here